1. admin@rmtvbangla.com : admin :
  2. sagorahamed619@gmail.com : Sagor Ahamed Milon : Sagor Ahamed Milon
রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০১:৩৯ পূর্বাহ্ন

যশোরে ছাত্রের বুকে লাথি দিলেন শিক্ষক

RM টিভি বাংলা
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৬ জুন, ২০২২
  • ৩৫ বার পঠিত

যশোরে নবম শ্রেণির এক ছাত্রকে বেধড়ক মারধর ও বুকে লাথি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে শিক্ষকের বিরুদ্ধে।
বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে শহরের মিউনিসিপ্যাল প্রিপারেটরি উচ্চবিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। তবে মারধরে জখম হয়ে যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে ওই শিক্ষার্থী।

ভুক্তভোগী হলেন, শহরের শংকরপুর এলাকার পলাশ হোসেনের ছেলে শুভ ইসলাম।ভুক্তভোগী শুভ ইসলাম বলেন, তাদের বিদ্যালয়ে অর্ধবার্ষিকী পরীক্ষা চলছে। বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) ছিল তাদের শেষ পরীক্ষা। এ দিন পরীক্ষা শেষ হওয়ায় ক্লাস রুমে কয়েকজন বন্ধু ও বান্ধবী মিলে ছবি তুলছিলাম। তাদের এই ছবি তোলা দেখতে পেয়ে সহকারী প্রধান শিক্ষক আমিরুল ইসলাম এসে আমাকে বেধড়ক বেত্রাঘাত শুরু করেন। একপর্যায়ে বুকে লাথি মারলে আমি ছিটকে পড়ে যায়। পরীক্ষা শেষে ক্লাস রুমে হৈ-হল্লোড়, চিৎকার করেনি। বিনা কারণে এসে আমাকে মারলেন।

অভিযুক্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক আমিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, এর আগেও শুভ বিদ্যালয়ে বিশৃঙ্খল কার্যকলাপের সঙ্গে জড়িত ছিল। বারবার তাকে সর্তক করা হলেও সে নিজেকে শুধরায়নি। আজ বৃহস্পতিবার পরীক্ষা শেষ হলে ছেলেটি একটি শ্রেণিকক্ষে তার কয়েকজন বন্ধুকে নিয়ে তাদের সঙ্গে থাকা একটি মেয়ের সঙ্গে সেলফি তুলছিল। তাদের সেলফি ও ছবি তোলা দৃষ্টিকটু হওয়ায় রাগে ছেলেটিকে মারধর করেছি। তবে রাগের মাথায় লাথি মারা ঠিক হয়নি।

এ বিষয়ে শিক্ষার্থীর মা শাহানা খাতুন বলেন, আমার ছেলে ভালো ছেলে। এলাকায় খারাপ ছেলেদের সঙ্গে মিশে না। বিদ্যালয়ে ছেলে-মেয়েরা আসে শেখার জন্য। সেখানে তারা দোষ করলে, শাসন করার অধিকার শিক্ষকদের আছে। তবে বেধড়ক মারপিট ও বুকে লাথি মারা কোনো শিক্ষকের কাজ না। আমার ছেলেটারে বুকে লাথি মেরেছে, ওই লাথিতে যদি ওর বড় কোনো বিপদ হতো এর দায় কে নিতো। তাছাড়া এমনভাবে ছেলেকে মেরেছে সারা শরীরে জখমের দাগ ও সাদা স্কুল ড্রেস রক্তে লাল হয়ে গেছে।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সবুর খান বলেন, শিক্ষার্থীর দোষ থাকলেও এভাবে মারা ঠিক হয়নি। সহকারী শিক্ষক রাগের মাথায় কাজটি করেছে। ঘটনাটি ঘটার পর আমি অভিযুক্ত শিক্ষককে শোকজ নোটিশ দিয়েছি। পৌর নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রধান করে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। আগামী ৩ দিনের মধ্যে কমিটি রিপোর্ট দেওয়ার পর তার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা